.COM.BD Domain- Online Registration

.bd domain registration

.COM.BD Domain- Online Registration

.COM.BD ডোমেইন নিয়ে অনেক কথা জমে আছে। আর এটিও হয়তো সত্য অনেকেই অপেক্ষা করছেন এ নিয়ে বিস্তারিত জানার জন্য। সত্যিকার অর্থে সময় হচ্ছিলো না অথবা বলতে পারেন জোশ পাচ্ছিলাম না। অনেকের মত  আমি নিজেও বেশ কয়েক বছর আগে থেকেই .com.bd ডোমেইন কিনবো কিনবো  করেও শেষ পর্যন্ত কেনা হয়নি তার প্রধান কারন ছিল- ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এর প্রসেস ছিল ম্যানুয়াল। মানে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে চাইলে, একগাদা কাগজ পত্র, পাসপোর্ট সাইজ রঙ্গিন ছবি, হাতে লিখে পুরন করা ফর্ম, BTCL অফিস এ গিয়ে এই রুম থেকে অন্য রুম ঘুরে ঘুরে অবশেষে নিজের কাঙ্ক্ষিত ডোমেইন এর রেজিস্ট্রেশন প্রসেস সম্পন্ন করা। আর এর বাইরে শুক্র, শনি সরকারী ছুটি সহ আরও অনেক অকেশনে ছুটিতে সেই সুবিধা না থাকা।

যেখানে একটি .com/.net/.org বা অন্যান্য এক্সটেনশন এর ডোমেইন মাত্র কয়েক মুহূর্তেই রেজিস্ট্রেশন করা সম্ভব সেই যুগে ম্যানুয়াল রেজিস্ট্রেশন এর পিছে ফাইল নিয়ে দৌর ঝাপ ঠিক আমার কাছে কোনভাবেই রিজনেবল ছিলনা।

তবে খুশির কথা হল- এখন আর সেই দিন নেই। মানে এখন আপনি অনলাইনেই আপনার কাঙ্ক্ষিত .com.bd Domain রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন নিজ চেয়ারে বসেই। এর জন্য আপনাকে BTCL এর অফিসে যাবারও দরকার নেই। সহজেই মাত্র ৬ ধাপেই সম্পন্ন করতে পারেন আপনার কাঙ্ক্ষিত .কম.বিডি ডোমেইন।

কিভাবে খুব সহজে এবং সঠিক নিয়মে একটি .কম.বিডি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা যায় সেই বিষয় নিয়েই আমি আজ লিখবো। তার আগে আমার মনে হয় কিছু প্রশ্নের উত্তর খোজা ভালো। প্রথমেই .com.bd ডোমেইন নিয়ে যে প্রশ্নগুলি খুব বেশী আলোচিত সেরকম কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর নিচে দেবার চেস্টা করছি –

.Com ভালো নাকি .Com.BD ডোমেইন ভালো?

আজকাল অনেকেই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন নিয়ে চিন্তায় পরে যান। নিজের পছন্দের .COM Domain টি হয়তো অনেক আগেই অন্য কেউ রেজিস্ট্রেশন করে ফেলেছেন। তাহলে এখন উপায়? .com ডোমেইন অবশ্যই ভালো, ভালো মানে এর চাইতে ভালো আর কিছু নেই আর হবেও না কোনদিন। কারন মানুষের কমন সাইকলজি বলে কথা- কোন ডোমেইন অ্যাড্রেস বলা মানেই আপনার স্রোতা বাই ডিফল্ট ধরেই নেবেন যে সেটি .com আর এর বেতিক্রম হলে আপনাকে পুরো ডোমেইন এর নাম বলে বুঝিয়ে বলতে হবে নাহলে দেখবেন আপনার ভিজিটর অন্নের সাইটে চলে গেছে। আপনি নিশ্চয়ই চাইবেন না আপনার সাথে এমন কিছু ঘটুক।

নামের সল্পতা এবং বিকল্প হিসেবে  অনেকেই পছন্দের নামের সাথে BD মানে xyzBD.com বা BDxyz.com ডোমেইন নিচ্ছেন। এটি মোটেও খারাপ কিছু না যদি সেটি BDSHOP.com এর মত ব্রান্ডেবল কোন ডোমেইন হয়। তবে এরকম তো আর সব ক্ষেত্রে হবেনা তাই, আমার মতে প্রথম প্রাইওরিটি হিসেবে লোকাল মানে বাংলাদেশী ডোমেইন এক কোথায় .com.bd domain – ই হতে পারে সবচাইতে সঠিক সিধান্ত।

আপনার বিজনেস যদি ইন্টারন্যাশনাল প্লাটফর্ম এ করার ইচ্ছা থাকে- সেক্ষেত্রে আমি অবশ্যই বলবো .com ডোমেইন নেবার জন্য। (আর সেই ডোমেইন যদি অন্য কেউ আগেই রেজিস্ট্রেশন করে থাকে তার কাছে কিভাবে রিচ করা যায়, তার কাছ থেকে কিভাবে ডোমেইন কেনা যায় সেটি নিয়ে আরেকটি পুরনাঙ্গ পোস্ট দেবো আসা করি)। আর যদি ব্যাপারটা এমন হয় যে, আপনার টার্গেট মার্কেট বাংলাদেশ এবং এখানেই আপনি ভালো করতে চান সেক্ষেত্রে নিসন্ধেহে .com এর চাইতে .COM.BD ডোমেইন অনেক বেশী পাউয়ারফুল হতে পারে।

 

*** অত্যন্ত প্রয়োজনীয় পোস্ট- এস.এ পরিবহন এর সকল ব্রাঞ্চ এর লিস্ট 

 

.com.bd ডোমেইন এ কি কি সুবিধা পাবো?

বিস্তারিত আসিতেছে…

 

.com.bd ডোমেইন এর অসুবিধা গুলি কি কি?

বিস্তারিত আসিতেছে…

 

এখন আপনি যদি কিছুটা মানসিক ভাবে প্রস্তুত হয়ে থাকেন তাহলে চলুন দেখি আপনার একটি .com.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন কি কি জিনিশ রেডি করে নিয়ে বসতে হবে। ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন বেশ কয়েক রকমের হয় তবে নিচের নিয়মগুলি বেক্তিগত বা কোম্পানির জন্য প্রায় একই। আর  আমি এখানে একটি বেক্তিগত ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন কিভাবে করতে হয় সেই বিষয়টি নিয়েই মুলত আলোচনা করব।

চলুন তাহলে আর দেরি না করে টোটাল প্রসেসটা হাতে কলমে শুরু করি।

  • ডোমেইন ফ্রি আছে কিনা সেটি চেক করা

.com.bd Domain

সবার আগে জেটি দরকার আপনার কাঙ্ক্ষিত ডোমেইনটি এখনো ফ্রি আছে কিনা অর্থাৎ অন্য কেউ এখনো রেজিস্ট্রেশন করেনি এমন কন্ডিশনে আছে কিনা সেটি আগে দেখে নিতে হবে। আর সেটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন  এবং তার পর www বাদে আপনার কাঙ্ক্ষিত ডোমেইন টি টাইপ করে সার্চ দিন। উদাহরণ হিসেবে- WatchShop.com লিখে সার্চ দিলে সেটি মুলত WatchShop.com.bd ডোমেইনকেই সার্চ করে তার ফলাফল দেখাবে। ডোমেইন খালি থাকলে অর্থাৎ অন্য কেউ রেজিস্ট্রেশন না করে থাকলে রেজাল্ট দেখতে নিচের মত হবে।

.com.bd domain

খালি আছে কি? যদি থেকে থাকে তাহলে আর দেরি না করে এখনি রেজিস্ট্রেশন এর জন্য তৈরি হয়ে যান। Register Now বাটনে ক্লিক করলে আরও একটি পপ আপ আসবে যাতে কিছু শর্তাবলির কথা লিখা থাকবে। সকল সর্ত মেনে প্রসিড বাটনে ক্লিক করলেই মুল পেজ চলে আসবে।

  • জাতীয় পরিচয় পত্র / পাসপোর্ট স্ক্যান কপি
  • TIN Certificate (Optional)
  • পুরনাঙ্গ ঠিকানা
  • ভ্যালিড ও একটিভ মোবাইল নাম্বার – ভ্যালিড বল্লাম কারন এই নাম্বারে SMS আসবে ভেরিফিকেশন এর জন্য। আর সবচাইতে ভালো হয় যদি টেলিটক নাম্বার থাকে। কারন পেমেন্ট এর জন্য টেলিটক নাম্বার থেকেই পে করতে হবে অথবা BTCL এর অফিসে গিয়ে টাকা জমা দিতে হবে। সময় ও রিকশা ভাড়া না দিয়ে ১১০ টাকা দিয়ে একটি টেলিটক নাম্বার নিয়ে নিতে পারেন। তবে টেলিটক নাম্বার কিন্তু সব জায়গায় পাবেন না। তাদের অফিস বা কাস্টমার কেয়ার থেকে নিতে হবে।
  • সিগনেচার– সাদা কাগজে নিজের সিগনেচার দিয়ে মোবাইল এ বা স্ক্যান করে নিতে পারেন
  • Registration Information, Billing Contact, Administrative Contact, Technical Contact এ আপনি চাইলে আলাদা আলাদা নাম ঠিকানা ব্যাবহার করতে পারেন। তবে আমার মনে হয় ৯৯% লোক নিজেই নিজের নাম ঠিকানা সব জায়গায় ব্যাবহার করে। তাই এই ৪ ধাপ মাত্র একবারেই শেষ করে দিতে পারেন। অর্থাৎ শুধু Registration Information টা সঠিক ভাবে ফিল করে বাকী স্টেপগুলিতে একটি টিক মার্ক দিয়ে দিতে পারেন। নিচের ছবিটির মত করে, তাহলে আর বার বার একই তথ্য টাইপ করতে হবে না।

.কম.বিডি ডোমেইন

 

  • নেম সার্ভার– এখন আর এটি ম্যান্ডাটরি না মানে আপনি এখন এই অংশে কিছু না লিখেও ফর্ম ফিল আপ করে ফেলতে পারেন। যদিও আগে এই ফিল্ড টি ম্যান্ডাটরি ছিল তার মানে ডোমেইন কেনার আগেই আপনার হস্টিং সার্ভিস নেয়া লাগত। আর এই ছোট্ট নেম সার্ভার এর নাম চেঞ্জ করার জন্য BTCL অফিস এ গিয়ে কাঠ খর পোড়াতে  হত। আর এখন আর সেই দিন নেই- দিন বদলে গেছে 😀 এখন আপনি চাইলে যেকোনো সময় নেম সার্ভার চেঞ্জ করতে পারবেন।
  • একদম লাস্ট স্টেপ এ আপনি যে রোবট নন তার একটি ছোট্ট পরীক্ষা দিয়ে মানে একটি ক্যাপচা কোড পাড়ি দিয়ে সাবমিট করতে হবে।

এবার ভেরিফিকেশন এর পালা

সাবমিট করার কয়েক মুহূর্তেই আপনার ইমেইল এ একটি সাক্সেসফুল ইমেইল যাবে। সেই ইমেইল এই “Customer ID” “Username” এবং “Password” থাকবে। এবং একই সাথে লগ ইন করার লিঙ্ক ও পেয়ে যাবেন। যদি কোন কারণে ইমেইল ইনবক্সে না যায় তাহলে স্পাম বা জাঙ্ক ফোল্ডার চেক করতে ভুলবেন না।

.বিডি ডোমেইন

ডোমেইন টি কিন্তু অলরেডি আপনার জন্য বুকিং হয়ে গেছে। বিশ্বাস না হলে  “ডোমেইন ফ্রি আছে কিনা” সেই ধাপটি আবার চেক করে দেখতে পারেন। কিন্তু ডোমেইন টি এখনো একটিভ না, শুধু মাত্র প্রাথমিক বুকিং হয়েছে।

এবার লিংক এ ক্লিক করে লগ ইন করলে আপনার ড্যাশবোর্ড এ কিছু অপশন দেখতে পাবেন। মানে চাইলে কোন ইনফরমেশন এডিট করার সুযোগ আছে। আর পেমেন্ট এর অপশনে ক্লিক করলে দেখাবে যে ডোমেইন টি এখনো একটিভ না।

তাহলে ডোমেইন একটিভ করবেন কিভাবে? হ্যাঁ- একটু ধৈর্য ধরতে হবে। আপনার ডোমেইন টি এর পর BTCL থেকে ম্যানুয়ালি চেক করে সব ইনফরমেশন ঠিক মনে হলে তারা Initial Approval ইমেইল এর মাধ্যমে কনফার্ম করবেন। সেই ইমেইল এ আপনি আপনার ডোমেইন এর জন্য “Dot BD Customer ID” পাবেন। এবং ইমেইল এর নিচের অংশে কত টাকা এবং কিভাবে পেমেন্ট করতে হবে তার কিছু ইন্সট্রাকশন দেয়া থাকবে।

.com.bd domain registration

উপরের স্ক্রিন শট এ দেখতে পারছেন ডোমেইন এর মূল্য বাবদ ২ বছরের জন্য ভ্যাট সহ ১৭২৫ টাকা পে করতে হবে। আর যদি টেলিটক এর মাধ্যমে পে করে তাহলে ১৫০ টাকা বেশী অর্থাৎ ১৮৭৫ টাকা পে করতে হবে। .

একটু খেয়াল করে দেখবেন, আপনার একটি .com.bd ডোমেইন মিনিমাম ২ বছরের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং ২ বছরের জন্য আপনাকে এককালিন ১৭২৫ টাকা বা ১৮৭৫ টাকা পে করতে হবে। প্রতি বছর প্রায় ৯০০ টাকার মত যা প্রায় একটি .com ডোমেইন এর সমান।

আমার মতে টেলিটক এ পে করা অনেক ইজি এবং বলতে পারেন ইনস্ট্যান্ট। আপনাকে ২ টা এসএমএস করতে হবে। প্রথম SMS এ – “BTCL DotBDCustomer ID” লিখে ‘16222″ পাঠাতে হবে। এর উত্তরে সাথে সাথেই আপনি একটি SMS পাবেন এবং সেই SMS এ আপনার নাম ও ডোমেইন এর নাম সহ কনফার্মেশন এর জন্য আরও একটি SMS করতে বলা হবে। তবে অবশ্যই আপনার মোবাইল এ ব্যালেঞ্চ  অন্তত ১৮৭৫ টাকা থাকতে হবে। পেমেন্ট করফারম হবার সাথে সাথেই আপনার ডোমেইন টিও একটিভ দেখাবে এবং আপনি আপনার ওয়েব সাইট তৈরির পরবর্তী কাজ শুরু করার জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত।

 

আসা করি প্রায় সব কিছুই উঠে এসেছে এখানে,  তার পরেও কারো কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানাতে পারেন। আমি চেষ্টা করবো সেই প্রশ্নের উত্তর জথা সময়ে দেবার জন্য। আর যদি উত্তর পেতে দেরি হয় তাহলেও মঙ্খারাপ করার কিছু নেই- দেরি হলেও উত্তর অবশ্যই পাবেন ইনশা আল্লাহ। তো আজ এ পর্যন্তই, ভালো থাকবেন সবাই।

 

8 Comments

  1. যদি কোন ব্রান্ড এর .com ডোমেইন থাকে, তাহলে নতুন করে কারো .com.bd ডোমেইন ব্যবহার করে ব্যবসা করা উচিৎ না । এটা মারাত্মক ভুল সিদ্ধান্ত হতে পারে । যেমনঃ

    ১> যে নামে .com অন্য কারো ওয়েবসাইট ব্রান্ডিং আছে, সেই একি নামে আপনি ইউনিক নিজস্ব ব্রান্ডিং করতে গেলে আপনার ক্লায়েন্টরা বিভ্রান্তিতে পড়বে । আপনার .com.bd কোম্পানি মনে করে .com এর ওয়েবসাইটে ভিজিটর চলে যাবার চান্স বেশি ।

    ২> অনেকে বলতে পারে লোকাল সার্চ এঞ্জিন অপ্টিমাইজেশনে এটি উপকারি হতে পারে, কিন্তু দেশের কাস্টমার নিয়ে ব্যবসা করতে চাইলেও , অনেক সময় প্রবাসীরা তাঁদের পরিবারের জন্য ই কমার্স দেশি কোম্পানি ব্যবহার করে , তাঁদের অর্ডার গুলি হাত ছাড়া হবে । ই-কমার্স এর সাথে সার্চ এঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন অঙ্গাঙ্গী ভাবে জড়িত । সেম নামের .com ডোমেইন এর কাছে .com.bd ডোমেইন পিছিয়ে পড়বে আন্তর্জাতিকভাবে । আগাতে চাইলেও পরিশ্রম বেশি হবে । দেশের বাইরে ব্যবসা করতে, সার্ভিস দিতে চাইলে .com.bd দিয়ে আন্তর্জাতিক লেভেলে ব্যবসা করা কঠিন ।

    ৩> সাধারণ .com এর চেয়ে দেশের পরিচয় নির্দেশক ডোমেইন গুলি যেমন .in .bd ইত্যাদিতে হ্যাকিং এর শিকার হবার সম্ভাবনা অনেক অনেক বেশি । কারন বিভিন্ন ইস্যুতে এক দেশের সাথে অন্য দেশের উত্তেজনার সময় সেই দেশের ওয়েব সাইট গুলিতে গণহারে হ্যাকারেরা এটাক করে । যেমন ফেলানি ইস্যুতে ইন্ডিয়ার হ্যাকারেরা বাংলাদেশের হাজার হাজার ওয়েব সাইট হ্যাকড হয় । ডোমেইন দিয়ে সহজেই চেনা যায় । আর একি কারনে .gov.bd সরকারী সাইট গুলি এত বেশি হ্যাকিং এ আক্রান্ত হয় । এগুলি ভিনদেশি হ্যাকারদের সহজ লক্ষ্যবস্তু হয় ।

     
    1. Author

      অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে এই অত্যন্ত গুরুত্তপূর্ণ বিষয়গুলি তুলে ধরার জন্য। আসা করি এই বিষয়গুলি অন্যদের সঠিক ডিসিশন নিতে অনেক সাহায্য করবে। ভালো থাকবেন।

       
  2. bhaia,tik ei rokom ,step by step .com ay domain reg.kora ta ki ektu bolben,pls

    apnar ei lekha ta onek valo hoisay ,specialy for who has very little idea on it,thanks for this.

     
    1. Author

      আপনার ভালো লেগেছে শুনে ভালো লাগলো। .com registration নিয়ে ইউটিউব এ হাজার হাজার ভিডিও পাবেন। যা দেখে দেখে সহজেই নিজে নিজেই .com ডোমেইন registration করতে পারবেন।
      আমি নিজেও এক্সময় ইউটিউব দেখে দেখে শিখেছি। 🙂

       
  3. ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের জন্য বুকিং এর তারিখ পার হওায়ায় রেজিস্ট্রেশন করতে পারছি না নতুন করে অ্যাপ্লাইও করতে পারছি না কারণ এখন ডোমেইন আমার নামেই বুকিং দেখায়। কি করণীয় ?

     

Leave a Reply